৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান চট্টগ্রাম নগর উন্নয়নে সিটি মেয়রের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, চট্টগ্রাম নগরের জন্য নাছির আঙ্কেল অনেক কিছু করেছেন। আধুনিক নগর বিনির্মাণে সিটি মেয়রের পাশে থাকুন। মেয়র যেন আরো ভাল কাজ করে যেতে পারেন সেজন্য চট্টগ্রামবাসীর দোয়া ও সহযোগিতা চাই।

বক্তব্য রাখছেন বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান

মঙ্গলবার (৩০জুলাই)বিকালে চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনায় তিনি ই আহবান জানান।

সংবর্ধনায় বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে নগর চাবি তুলে দেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে সাকিব আল হাসান তার প্রিয় চট্টগ্রামের কালা ভুনার প্রশাংসা করতেও ভুলেননি। তিনি জানান, তার প্রিয় খাবার চট্টগ্রামের কালা ভুনা। চট্টগ্রামে এলেই তিনি প্রিয় কালা ভুনা খেতে চান। খাবারের তালিকায় যা-ই থাক সাকিবের চোখ খুঁজে ফেরে  কালা ভুনা। তাই চট্টগ্রামে এলে ভক্ত শুভাকাঙ্ক্ষীরা সাকিবের জন্য কালা ভুনা রান্না করবেই। শুধু চট্টগ্রামে নয়, শুভাকাঙ্ক্ষীরা সাকিবের জন্য ঢাকায়ও কালা ভুনা পাঠিয়ে দেন।

এ সংবর্ধনা আয়োজনের জন্য সিটি মেয়রকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন ক্রিকেট বিশ্বের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, বিশ্বকাপ ক্রিকেট-২০১৯’এ ব্যক্তিগত ৬০৬ রান ও ১১টি উইকেট নিয়ে সাকিব আল হাসান টুর্নামেন্ট সেরার মর্যাদা পেয়েছেন। বিদেশ ভ্রমণসহ নানা ব্যস্ততার মাঝেও চট্টগ্রামবাসীর টানে তিনি চলে এসেছেন। তার অসাধারণ পারফরমেন্সের কারণে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সম্মানজনক অবস্থানে দাঁড়িয়েছে। আজকের এই সংবর্ধনা নতুন ক্রিকেটারদের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। নতুন প্রজন্ম আগামীর সাকিব হয়ে উঠতে চাইবে।

সংবর্ধনা শেষে সাকিব আল হাসান নতুন প্রজন্মের ক্রীড়াবিদদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন।

এক প্রশ্নের জবাবে দেশে নারী ক্রিকেটের উন্নয়ন প্রসঙ্গে সাকিব বলেন, দেশে পুরুষ ক্রিকেটের তুলনায় নারী ক্রিকেট অনেক এগিয়েছে। আমরা এখনো বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলতে পারিনি। কিন্তু নারীরা উইমেন বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারতকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

আর পড়ুন:   জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার্থীদের নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণের নির্দেশ  

সফলতার প্রশ্নে সাকিব বলেন, সফলতায় কোনো বিজ্ঞান নেই। সফল হতে হলে কঠোর পরিশ্রম, অনুশীলন ও সুষম খাবার গ্রহণ করতে হবে। আমি বিশ্বকাপের তিন মাস আগে থেকেই কঠোর অনুশীলন, পরিশ্রম করেছিলাম। তার ফলস্বরূপ বিশ্বকাপে এই সফলতা এসেছে।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আবু হাসান সিদ্দিক, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সিরাজ উদ্দিন মো আলমগীর, সিজেকেএস ক্রিকেট কমিটির সম্পাদক আবদুল হান্নান আকবর প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সিজেকেএস কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব অনুষ্ঠান  সঞ্চালনা করেন।  অনুষ্ঠানে চসিক প্যানেল মেয়র হাসান মাহমুদ হাসনী, ড. নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, জোবাইরা নার্গিস খানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

-সিভয়েস/ইউডি/এসএ