৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলায় চারজনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পরে ওই হত্যাকারী পালিয়ে যেতে চাইলে এলাকাবাসী তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামে বুধাবার (১০ জুলাই)সকালের দিকে এ ঘটনা ঘটে। তবে তাৎক্ষণিক হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ জানা যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন দেবীদ্বার থানার ওসি জহিরুল আনোয়ার। তিনি  জানান, অভিযুক্ত ঘাতকের নাম মোখলেসুর রহমান। বয়স ৪০। পেশায় রিকশাচালক। সে মাদকাসক্ত ও মানসিকভাবে কিছুটা ভারসাম্যহীন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। ভোরে বাড়িতে ঢুকে চারজনকে কুপিয়ে হত্যা করে সে। পরে স্থানীয়রা তাকে আটক করেন। এ সময় গণপিটুনিতে তার মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- রাধানগর গ্রামের মৃত শাহ আলমের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪৫), তার ছেলে হানিফ (১৩), নরুল ইসলামের স্ত্রী নাজমা এবং মৃত আবদুল খালেকের স্ত্রী মাজেদা।

হত্যাকারীর নাম মোখলেছুর রহমান। তিনি পেশায় রিকশাচালক। তার বাবা নাম মোরতুন আলী।

জানা যায়, মুকলেসুর রহমান বেলা ১১টার দিকে আনোয়ারা বেগমের বাড়িতে হামলা চালায়। পরে আনোয়ারা ও তার ছেলেকে কুপিয়ে হত্যা করেন। এই দৃশ্য দেখে পাশের বাড়ির নাজমা ও মাজেদা এগিয়ে এলে তাদেরকেও কুপিয়ে হত্যা করেন মুকলেসুর রহমান। পরে হত্যাকারী পালিয়ে যেতে চাইলে এলাকাবাসী তাকে আটক করে। পরে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে কি কারণে এই হত্যাকাণ্ড তা এখনো জানা যায়নি।