৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবিতে ‘গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলন’ এর উদ্যোগে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়।

শনিবার (২২ জুন)  বেলা ১১টায় বিক্ষোভ মিছিলটি নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইট এ্যাঙ্গেল মোড় ঘুরে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এতে নেতৃত্ব দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।

মিছিল শেষে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে কারাবন্দী রেখে সরকার প্রধান প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে মরিয়া হয়ে ওঠেছেন। আর তাই বেগম জিয়াকে মুক্তি না দিয়ে বর্তমান অবৈধ নিষ্ঠুর সরকার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। বেগম খালেদা জিয়ার ওপর বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর চলমান হয়রানী ও নিষ্ঠুরতার অবসান ঘটাতে জনগণ এখন চূড়ান্ত প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। গুম-খুন-ক্রসফায়ার-অপহরণ-ভয় ও শঙ্কার বর্তমান এই দুঃসময় অতিক্রম করে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনে দেশের জনগণের মাঝে স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে হলে ‘গণতন্ত্রের মা’ দেশনেত্রীর মুক্তির জন্য রাজপথে লড়াইয়ের কোনো বিকল্প নেই।’

বিক্ষোভ মিছিলে অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার, অ্যাডভোকেট আবেদ রাজাসহ গণতন্ত্র ও খালেদা জিয়া মুক্তি আইনজীবী আন্দোলনের বিপুল সংখ্যক আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

রিজভীর বক্তৃতা চলাকালে বিএনপি অফিসের নিচে বিক্ষোভরত ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির বিক্ষুব্ধ একটি অংশের নেতাকর্মীরা হট্টগোল করার চেষ্টা করে।