৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভারতের মানুষ সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে। দ্বিতীয়বারের জন্যে দিল্লির মসনদে ফের নরেন্দ্র মোদী। দায়িত্ব নেয়ার পরেই হায়দরাবাদ হাউসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিকে এহেন আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিকে আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, আমরা মনে করি জরুরিভিত্তিতে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান হওয়া উচিত। কাজেই বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামে আমরা আগামিদিনে এ বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবে বলেও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

একই সঙ্গে মোদী জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা সমস্যা শুধু বাংলাদেশের একার নয়। এটা সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার জন্য মারাত্মক হুমকি। দীর্ঘস্থায়ী ও দ্বিপক্ষীয় ঐতিহাসিক এবং ভ্রাতৃপ্রতীম দু’দেশের মধ্যে সম্পর্কের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে মোদী বলেন, ভারত সরকার এবং ভারতের মানুষ সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে।

অন্যদিকে, নরেন্দ্র মোদী যৌথভাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতারসুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন।

অন্যদিকে বৈঠকে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মোদীকে বলেন, বাংলাদেশের জনগণ তিস্তার জল বণ্টনের বিষয়টি মীমাংসা করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে অপেক্ষায় আছে। ভারতও অমীমাংসিত বিষয়টির সমাধান চায় উল্লেখ করে যৌথ নদী কমিশনের কার্যকারিতার ওপর গুরুত্বারোপ করেন মোদী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শেখ হাসিনার প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে অংশিদারত্ব বিকশিত হয়েছে। আগামিদিনে দুদেশের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন।