৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নেয়া হয়েছে।

শনিবার(৬অক্টোবর) বেলা ৩টা ১১ মিনিটে খালেদাকে বহনকারী গাড়িটি কারাগার থেকে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে বের হয়। ৩টা ৪০ মিনিটে গাড়িটি হাসপাতালের গেটে এসে পৌঁছায়।

কঠোর নিরাপত্তায় ১৫টি গাড়িবহরে বেগম জিয়াকে নিয়ে যাওয়া হয়। বহরে র‌্যাব, চকবাজার থানার ওসি, লালবাগ জোনের এসি, ফায়ার সার্ভিস, অ্যাম্বুলেন্স, ফোর্স পুলিশের গাড়ি ছিল।

খালেদা বের হওয়ার কিছুক্ষণ আগে পুলিশের একটি ভ্যানে তার শোয়ার ম্যাট্রেসটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

বিএনপি নেতারা বহুদিন ধরে বলে আসছিলেন খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। খালেদা জিয়ার অসুস্থতার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার বলে আসছিল জেলকোড অনুযায়ী তাকে বিএসএমএমইউয়ে চিকিৎসা নিতে হবে। তবে খালেদা জিয়া এতে রাজি হচ্ছিলেন না। তিনি চেয়েছিলেন ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএসএমএমইউ’র একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা আজ দুপুরের দিকে জানান, কারাবিধি অনুসারে খালেদা জিয়ার জন্য ‘ডিলাক্স কেবিন’ ইস্যু করা হয়েছে। বেগম খালেদা জিয়া ৬১২ নম্বর কেবিনে থাকলেও তার জন্য পাশের ৬১১ নম্বর কেবিনটিও বরাদ্দ করা হয়েছে। ওই কক্ষে তার সহকারী বা কারা নিরাপত্তারক্ষীরা থাকতে পারবেন।

এর আগে চলতি বছরের ৭ এপ্রিল বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে নেয়া হয়েছিল। তার ছয় মাস পর আজ তাকে আবারও চিকিৎসার জন্য বিএসএমএমইউতে নেয়া হলো।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। ওইদিন থেকেই রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে খালেদা জিয়াকে বন্দি রাখা হয়েছে।