১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পরপর কয়েকটি ভূমিকম্পের পর সুনামিও আঘাত হেনেছে ইন্দোনেশিয়ায়। শনিবার (২৯সেপ্টেম্বর)সকালে প্রায় তিন মিটার উঁচু ঢেউ আঘাত হানে পালু শহরের সুলাওয়েসি দ্বীপে। এতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮৪ জনে দাঁড়িয়েছে। খবর রয়টার্সের।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ প্রতিরোধ সংস্থা বিএনপিবি’র মুখপাত্র সুতপো পারো নিউগরোও জাকার্তায় এক ব্রিফিংয়ে বলেন, গতকাল সুনামি সতর্কতা জারি করার পরও লোকজন তাদের স্বাভাবিক কাজকর্ম চালিয়ে গেছেন। এজন্য মৃতের সংখ্যা এতো বেশি। জীবন বাঁচাতে ১৮ ফুট উঁচু গাছেও উঠেছিলেন মানুষ।

পালু শহরের বার্ষিকী উদযাপনের জন্য সমুদ্র সৈকত উৎসবের প্রস্তুতি নিচ্ছিলো শত শত মানুষ। শুক্রবার রাতে এ উৎসব শুরু হওয়ার কথা ছিল।

ভূমিকম্প ও সুনামির আঘাতে হাজার হাজার ঘরবাড়ি, কয়েকটি হাসপাতাল, শপিং মল এবং হোটেল ভেঙে গেছে। ভূমিধসের কারণে পালুতে প্রধান মহাসড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

দেশটির দুর্যোগ প্রতিরোধ সংস্থার একজন মুখপাত্র জানান, ঘন ঘন ভূমিকম্পের আঘাতে ঘরবাড়ি ধসে পড়েছে। উদ্ধারকাজ এখনও অব্যাহত আছে।

শুক্রবার পালু শহরের অদূরে ৬ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পের পর ৭ দশমিক ৫ মাত্রা ভূমিকম্পের আঘাতে কেঁপে ওঠেছিল দেশটির মধ্যাঞ্চল। তবে এর আগেই ইন্দোনিশয়া ও জাপানে সুনামি সতর্কতা জারি করে কর্তৃপক্ষ।