১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় এক ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কর্ণফুলী উপজেলার বড়উঠানের শাহ মীরপুর এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। হামলায় হামলায় আহত মামুনুর রশিদ (২৫) রাত পৌনে ৯টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

উপজেলা ছাত্রলীগের কর্মী নিহত মামুনুর রশিদ বড়উঠান ইউনিয়নের জমাদারপাড়া গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে। তিনি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়িতে দায়িত্বরত এএসআই শীলব্রত বড়ুয়া জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় এক ছাত্রলীগকর্মীকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ছাত্রলীগকর্মীর মাথা, শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে গুরুতর আহত এবং শরীর থেকে একটি হাত বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে বলেও জানান শীলব্রত বড়ুয়া।

কর্ণফুলী থানার ওসি মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, মামুনুর রশিদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সন্ধ্যা ৬টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত মামুনুরকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় তিনি ও বড়উঠান ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুল ইসলাম আহত হন।

কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. ফারুক চৌধুরী সমকালকে বলেন, এলাকায় মাদক ব্যবসা ও জুয়ার আসরে যারা জড়িত তাদের প্রতিবাদ করে আসছিলেন মামুনুর। এ কারণে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালাতে পারে।