৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রাম নগরের প্রধান প্রধান সড়কদ্বীপ ও চত্বরে মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান তুলে ধরতে সিটি করপোরেশন নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্পর্কে সঠিক ধারণা পাবে ।

শুক্রবার (২১ সেপ্টেম্বর) চট্টেশ্বরী রোডে মুক্তিযুদ্ধের দুই সংগঠক জহুর আহমদ চৌধুরী ও এম এ মান্নান স্মরণে নির্মিত ‘জহুর-মান্নান চত্বর’ উদ্বোধন শেষে মেয়র এসব কথা বলেন।

আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, মুক্তিযুদ্ধকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে চায় সিটি করপোরেশন। এ জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান সবার আগে তুলে ধরতে হবে। এরই ধারাবাহিকতায় নগরের প্রধান প্রধান সড়কদ্বীপ, চত্বর সমূহে তাদের অবদান উল্লেখ করে তা নতুন আঙ্গিকে সাজানোর প্রয়াস চলছে।

সিটি মেয়র বলেন, চট্টগ্রামকে বিশ্বমানের, পরিবেশবান্ধব ও পরিচ্ছন্ন নগরে পরিণত করতে চাই। এ জন্য সিটি করপোরেশন নিজেদের কার্যক্রমের পাশাপাশি সৌন্দর্য বর্ধনে বেসরকারি উদ্যোক্তাদেরও সুযোগ দিচ্ছে।

তিনি নগরের গুরুত্বপূর্ণ মোড় ও সড়কদ্বীপ সমূহের সৌন্দর্য বর্ধন কাজে বেসরকারি উদ্যোক্তাদের আরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

জহুর-মান্নান চত্বর নির্মাণের স্পন্সর এপিক প্রপার্টিজের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী এস এম লোকমান কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুছ ছালাম, প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, কাউন্সিলর মো. গিয়াস উদ্দিন, শৈবাল দাশ সুমন, রাজনীতিক সুনিল সরকার, সফর আলী, শেখ মাহমুদ ইসহাক, আবদুল লতিফ টিপু, আবুল বাশার, মোর্শেদুল আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে এম এ মান্নানের কবরে চসিকের পক্ষে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।