১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশের মাটিতে মাদকসেবন ও মাদক ব্যবসাকে শূন্যের কোটায় আনতে ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে র‌্যাব-পুলিশ ও মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মাদকবিরোধী অভিযান। অভিযানে গ্রেফতার হয়েছে অনেকে, বন্দুকযুদ্ধে নিহতের সংখ্যাও কম নয়। এতে মাদক ব্যবসা কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসলেও পুরোপুরি নির্মূল করা সম্ভব হয়নি।

দেশ থেকে মাদক নির্মূলে এবার ভিন্নধর্মী উদ্যোগ নিয়েছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। আইনের প্রয়োগের পাশাপাশি যার যার অবস্থান মাদকের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টির পদক্ষেপ নিয়েছে তারা। এরই অংশ হিসেবে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের যেকোনো দিন ঢাকাসহ সারাদেশে একযোগে ‘মাদককে না’ বলবে সব মানুষ।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, মাদকের বিরুদ্ধে ‘হার্ডলাইনে’র পাশাপাশি ‘সফটলাইনের’ কার্যক্রম হিসেবে এই উদ্যোগ। দিন-তারিখ ঠিক না হলেও সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই কর্মসূচি পালিত হবে। এদিন ঢাকাসহ সারাদেশের বিভাগীয় ও জেলা শহরে স্ব স্ব অবস্থান থেকে সবাই এক মিনিট দাঁড়িয়ে ‘মাদককে না’ বলবে।

ঢাকায় এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে তথ্য মন্ত্রণালয়, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি), ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ কাজ শুরু করেছে। এছাড়াও ঢাকার বাইরে এই কর্মসূচি সফল করতে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মো. জামাল উদ্দীন আহমেদ বলেন, ইতোমধ্যে আমরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বলেছি সংশ্লিষ্ট স্টেকহোল্ডারদের নিয়ে কেবিনেটকে একটি বৈঠক ডাকার আহ্বান জানাতে। সভায় কর্মসূচির তারিখ ও বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া নির্ধারণ করা হবে। আশা করছি, সেপ্টেম্বরের মধ্যে মাদকের বিরুদ্ধে সর্ববৃহৎ এই প্রচার অভিযানটি আয়োজন করতে পারবো।
অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, মাদক নির্মূল অভিযানে অংশ নেয়ার জন্য ইতোমধ্যে দুইজন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তারা অভিযানে গিয়ে তৎক্ষণাৎ আসামিদের সাজা দেবেন। এ ছাড়াও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রশিক্ষণ কোর্সে মাদকাসক্তি সম্পর্কে কোর্স অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, মাদকনিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে সরকারি-বেসরকারি চাকরি এবং যানবাহন চালানোর লাইসেন্স পেতে মাদকাসক্ত শনাক্তকরণ ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করার পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। এই টেস্টে উত্তীর্ণরাই কেবল চাকরি এবং লাইসেন্স পেতে পারবেন। এ ছাড়া ব্যাংক-বীমাসহ অন্যান্য বেসরকারি প্রতিষ্ঠানেও এটি পর্যায়ক্রমে প্রয়োগের জন্য স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশনা দেয়া হবে। বিআরটিএকে ডোপ টেস্ট করে মাদকাসক্তদের লাইসেন্স পাওয়ার অযোগ্য ঘোষণা করতে হবে। দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতেও আকস্মিকভাবে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের ডোপ টেস্ট করা হবে।

আর পড়ুন:   নুসরাতের হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

গত মে মাসে এক সংবাদ সম্মেলনে সারাদেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরুর ঘোষণা দেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। ঘোষণা ছাড়াই পৃথকভাবে অভিযান শুরু করে পুলিশ। ঘটে একের পর এক ‘বন্দুকযুদ্ধ’র ঘটনা। র‌্যাব-পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কমপক্ষে ১৬০ নিহত হলেও নিহতের পরিসংখ্যান জানাতে অপারগতা প্রকাশ করে পুলিশ সদর দফতর।

গত বছর সারাদেশে এক লাখ ৩২ হাজার ৮৮৩ জন মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে এক লাখ ছয় হাজার ৫৩৬টি মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এর মধ্যে নেত্রকোনায় চারজন, গাইবান্ধায় পাঁচজন, ময়মনসিংহে দুইজন এবং দিনাজপুরে একজন নিহত হয়েছেন। জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে এ তথ্য জানা গেছে।

জাগো নিউজের নেত্রকোনা প্রতিনিধি জানান, নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কেন্দুয়া-আঠারোবাড়ি সড়কে মাসকা কাঁঠালতলা এলাকায় বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। শনিবার বেলা পৌনে ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কেন্দুয়ার বলাইশিমুল গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে সিএনজিচালক জামাল মিয়া (২৮), কুতুবপুর নওয়াপাড়া গ্রামের হাদিস উদ্দিনের ছেলে নাজির উদ্দিন (২৭), একই গ্রামের জামাল মিয়ার ছেলে শরিফ মিয়া (২০) ও মোহনগঞ্জের আদর্শনগর গ্রামের হান্নান মিয়ার ছেলে মুরাদ মিয়া মিয়া (২২)।

আহতদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এরা হলেন- কেন্দুয়ার কুতুবপুর গ্রামের আলেক মিয়ার ছেলে গোলাম রব্বানী, দুদু মিয়ার ছেলে জসিম উদ্দিন ও সাইফুলের ছেলে সাকিব মিয়া। তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ঢাকা থেকে নেত্রকোনার কলমাকান্দার পাঁচকাটা এলাকার উদ্দেশে মায়ের দোয়া পরিবহনের একটি বাস মাসকা কাঁঠালতলা এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত থেকে আসা সিএনজিচালিত অটোরিকশাটির সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হন।

নেত্রেকানার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শাহজাহান মিয়া বলেন, চারজন নিহত হয়েছেন। তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। বাসটিকে জব্দ করা হয়েছে। চালককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাক্টরের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০ জন। শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন রাইস মিল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আর পড়ুন:   বইমেলা ১৮ মার্চ থেকে শুরু

গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আব্দুল হামিদ বলেন, গাইবান্ধা থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকাগামী দরবার নামে একটি সিটিং সার্ভিস বাস পলাশবাড়ী উপজেলায় প্রবেশের সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক্টরের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুই পুরুষ ও দুই নারী মারা যান। পরে হাসপাতালে এক শিশু মারা যায়।

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহে বাস-সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই এক শিশুসহ দুজন নিহত হয়েছেন। নিহতরা সম্পর্কে মামা-ভাগনি বলে জানা গেছে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরও চারজন। তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহতরা সবাই অটোরিশার যাত্রী। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে সদরের চরপুলিয়ামারি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার খোকন (৪০) ও নাজমুন্নাহার (৫)।

কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম জানান, ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের সদর উপজেলার চরপুলিয়ামারি এলাকায় রাত ৮টার দিকে কিশোরগঞ্জগামী এমকে সুপার পরিবহনের একটি বাস ও বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে গুরুতর আহত ছয়জনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে রাস্তায় শিশুসহ দুইজন মারা যান।

দিনাজপুর প্রতিনিধি জানান, দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে হিরামতি সিনেমা হলের সামনে ট্রাকের ধাক্কায় ফেরেজা বেগম নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হিলি-জয়পুরহাট সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, দুপুরে ফেরেজা বন্দরের হিরামতি সিনেমা হলের সামনের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল। এ সময় পেছন থেকে একটি ট্রাক তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হাকিমপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (এসআই) রাকিম হাসান জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের করার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।