৮ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৪শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আজ শুক্রবারের দু’টি হজফ্লাইট বাতিল করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। হজযাত্রী কম থাকায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে, এয়ারলাইন্সটির ৫ হাজার হজযাত্রীর টিকিট অবিক্রিত রয়েছে। প্রায় ৫০টি হজ এজেন্সি এখনও ২ হাজার ৫০০ হজযাত্রীদের অনুকূলে বাড়িভাড়া নিশ্চিত করেনি। দফা দফায় ধর্ম মন্ত্রণালয় হজ এজেন্সিগুলোর সঙ্গে বৈঠক করেও সমাধান না হওয়ায় হজযাত্রায় বাড়ছে অনিশ্চয়তা।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ৫৫ হাজার ৬৮৩জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এরমধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে গিয়েছেন ২৯ হাজার ৪৫৬ জন এবং সাউদিয়া এয়ারলাইন্সে গিয়েছেন ২৬ হাজার ২২৭ জন। অন্যদিকে  শুক্রবার (২৭ জুলাই) ২টি হজফ্লাইট বাতিল করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। পর্যাপ্ত যাত্রী না পাওয়ায় ফ্লাইটগুলো বাতিলা করা হয়। ১৫৫টি ডেডিকেটেড ও ৩২টি শিডিউল ফ্লাইটে হজযাত্রী পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এসব ফ্লাইটে বাংলাদেশ থেকে ৬৩ হাজার ৬০০ জন হজযাত্রী সৌদ আরবে পাঠানো যাবে।
এ প্রসঙ্গে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বলেন, ‘যাত্রী না পাওয়া ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। তবে এ দু’টি ফ্লাইটের যাত্রীদের অন্য ফ্লাইটে সমন্বয় করে সৌদি আরবে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে ধারাবাহিকভাবে ফ্লাইট বাতিল হলে সংকট বাড়বে। কারণ এবছর পূর্ব-নির্ধারিত হজফ্লাইটের বাইরে নতুন করে হজফ্লাইটের স্লটের অনুমতি দেবে না সৌদিআরব।
প্রায় ৫০টি হজ এজন্সি এখনও ২ হাজার ৫০০ হজযাত্রীদের অনুকূলে বাড়িভাড়া নিশ্চিত করেনি। গত ২৩ জুলাই এক জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করে ধর্ম মন্ত্রণালয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ধর্ম মন্ত্রণালয় ১৬ জুলাই থেকে ১৮ জুলাই এবং ২২ জুলাই ১৪৪টি হজ এজেন্সির সঙ্গে বৈঠক করে। পর্যালোচনায় দেখা যাচ্ছে, কোনও কোনও হজ এজেন্সি এখনও বিমানের টিকিট নিশ্চিত করে বাড়ি ভাড়া সম্পন্ন করেনি। সে সব এজেন্সিকে ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে মক্কা, মদিনায় বাড়ি ভাড়া নিশ্চিতসহ বিমানের টিকিট সংগ্রহ করে মন্ত্রণালয়কে জানানোর জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়। অন্যথায় হজযাত্রী পরিবহনে কোনও জটিলতা সৃষ্টি হলে সব দায় সংশ্লিষ্ট এজেন্সিকে বহন করতে হবে।
এ প্রসঙ্গে হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বাংলা বলেন, ‘আমরা হজ এজেন্সিগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছি। দ্রুত সময়ের মধ্যে যেন হজযাত্রীদের যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করে।’
তবে কোনো কোনো এজেন্সি হজযাত্রীদের বাড়ি ভাড়া নিশ্চিত করেনি তাদের নাম প্রকাশ করেনি হজ অফিস। এ প্রসঙ্গে হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘এজন্সিগুলোর নামের তালিকা এ মুহূর্তে প্রকাশ করলে হজযাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হবে। আমরা চেষ্টা করছি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে।’

আর পড়ুন:   দেশে করোনায় আজও ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫