১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ || ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গ্রিসে ভয়াবহ দাবানলে কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১০৪ জন। এদের মধ্যে ১১ জনের অবস্থা গুরুত্বর। হতাহতের মধ্যে ১৬ শিশুও রয়েছে। খবর বিবিসি’র।

খবরে বলা হয়, গত এক দশকের মধ্যে গ্রিসের জন্য সবচেয়ে বড় সংকট সৃষ্টি করেছে রাজধানী এথেন্সের নিকটে পুড়তে থাকা এই দাবানল। মানবাধিকার সংস্থা রেড ক্রস জানিয়েছে, সমুদ্র উপকূলবর্তী মাটি গ্রামের একটি বাগানবাড়ির উঠান থেকে ২৬ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। দাবানলের একেবারে কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত মাটি গ্রাম।

প্রাথমিকভাবে কর্মকর্তারা এই বিপর্যয়ে নিহতের  সংখ্যা জানিয়েছিল ২৪ জন।

জরুরী কর্মীরা নিকটবর্তী একটি সমুদ্র সৈকত থেকে নৌকা ও হেলিকপ্টারে করে মানুষজনকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ দুর্যোগ মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক সহায়তা চেয়ে আহবান জানিয়েছে।

শত শত দমকলকর্মী দাবানলের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন। ইতিমধ্যে বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র সরে গেছেন এথেন্সের নিকটবর্তী অঞ্চলগুলোর অনেক মানুষ। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন,  আগুন থেকে বাঁচতে এক নৌকা নিয়ে পালিয়েছে ১০ পর্যটক। তাদের অবস্থান অজানা রয়েছে। তাদের জন্য একটি উদ্ধার অভিযান চালু করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী অ্যালেক্সিস সিপরাস বলেছেন, এই (দাবানল) নিয়ন্ত্রণ করতে মানুষের পক্ষে যা যা সম্ভব তার সবই আমরা করবো। পরিস্থিতি বিবেচনা করে তিনি বসনিয়ায় একটি আনুষ্ঠানিক সফর বাতিল করে দিয়েছেন।