১৭ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ১লা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সমাজের অবহেলিত ও বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে বর্ষাকালীন বিভিন্ন ফল খাওয়া, ফলের পুষ্টিজ্ঞান নিয়ে অতিথিবক্তা রোটরিয়ান হাসিনা আক্তার লিপির সারগর্ভ আলোচনা, জেলা গভর্নরসহ অতিথি রাটারিয়ানদের স্বতস্ফূর্ত উপস্থিতি, অপরাজেয় বাংলাদেশের শিল্পীদের নজরকাড়া নৃত্যপরিবেশন সবকিছু মিলিয়ে রোটারি ক্লাব চিটাগাং হিলটাউনের দ্বিতীয় নিয়মিত সভা ও ফলোৎসব গত ২০জুলাই নগরের স্টেশন রোডস্থ হোটেল সৈকতের হালদা হলে অত্যন্ত ফলপ্রসূভাবে সম্পন্ন হয়।

হিলটাউনের ব্যতিক্রমী এ আয়োজনে মুগ্ধ আমন্ত্রিত অতিথি রোটারিয়ানরা এটিকে অনুকরণীয় একটি কর্মসূচি হিসেবে ভূয়সী প্রশংসা করেন।হিলটাউন রোটারি ক্লাবের রোটাবর্ষের প্রথম ও দ্বিতীয় নিয়মিত সভায় জেলা গভর্নর আতাউর রহমান পীরের উপস্থিতিতে প্রকল্প বাস্তবায়নকে অনুকরণীয় বলে মন্তব্য করেন অতিথিবক্তারা। ক্লাব প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান দেবদুলাল ভৌমিকের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা গভর্নর এম আতাউর রহমান পীর, লে. গভর্নর মাহফুজুল হক, সহকারি গভর্নর এ আর খান, রোটারিয়ান অধ্যাপক জাহাঙ্গির চৌধুরী, রোটারিয়ান ফাতেমা জেবুন্নেসা, রোটারিয়ান হাসিনা আক্তার লিপি, রোটারিয়ান মীর নাজমুল আহসান রবিন, রোটারিয়ান আশিস কুমার দত্ত, রোটারিয়ান আবু আজমল পাঠান, রোটারিয়ান আমজাদ হোসেন, রোটারিয়ান মোহাম্মদ মুজিবুল্লাহ, রোটারিয়ান মো. রকিউদ্দিন, রোটারিয়ান নোটনপ্রসাদ ঘোষ, রোটারিয়ান গোলাম মওলা মামুন, রোটারিয়ান প্রদীপ কুমার দাশ, রোটারিয়ান জনার্দন কুমার ভৌমিক, পরিদর্শক অতিথি ড. সুকলা রক্ষিত, রোটারিয়ান দিদারুল আলম, ক্লাব সেক্রেটারি রোটারিয়ান মোহাম্মদ ইউসুফ, রোটারিয়ান মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, রোটারিয়ান খায়ের আহমেদ, রোটারিয়ান মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন, রোটারিয়ান নুরুল আলম চৌধুরী, রোটারিয়ান মো. শাহআলম, রোটারিয়ান নিরেশচন্দ্র দাশ প্রমুখ। পরিদর্শক অতিথির মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মনোজ কুমার দেব, ঝুমরী বড়ুয়া, লিনাত আরা বেগম, বিশ্বজিৎ গোস্বামী ও ড. সুকলা রক্ষিত।শিক্ষার ওপর সুকলা রক্ষিতের গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য উপস্থিত সকলের কাছে বেশ প্রশংসিত হয়। রোটারেক্টরদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রোটারেক্টর ছোটন মিঞা চৌধুরী, সানজিদা আক্তার আঁখি, হাফেজ ও তানভির। গভর্নর এম আতাউর রহমান পীর চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড কর্মকর্তা ড. সুকলা ধরকে পিন পরিয়ে রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং হিলটাউনের সদস্য করেন।