১০ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আগামী ২৪-২৬ জুলাই ২০১৮ অনুষ্ঠিতব্য জেলা প্রশাসক সম্মেলনে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় বর্তমান সরকারের অঙ্গীকার ও ঘোষিত নীতি-প্রাধান্য অনুযায়ী স্থানীয় পর্যায়ে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশলের কার্যকর বাস্তবায়ন এবং জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে এল. আর. ফান্ড পরিচালনায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ পর্যালোচনা ও বাস্তবসম্মত উদ্যোগ নির্ধারণের আহ্বান জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিতব্য তিনদিনব্যাপী জেলা প্রশাসক সম্মেলন ২০১৮ এর এজেন্ডায় মাঠ পর্যায়ে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় উপরোল্লিখিত উভয় বিষয় অন্তর্ভুক্তকরণের জন্য গত ২২ জুলাই মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব বরাবর একটি পত্রের মাধ্যমে টিআইবি’র পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়। আজ  চাটগাঁর বাণীতে পাঠনো এক বিবৃতিতে টিআইবি’র নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘‘সরকার ঘোষিত ‘সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়: জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল ২০১২’ বাস্তবায়নের অগ্রগতি, সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ বিষয়ে মতবিনিময় ও তার ভিত্তিতে পরবর্তী কর্মপন্থা নির্ধারণে জেলা প্রশাসকদের সম্মেলনে এ বিষয়ে আলোকপাত সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য সময়োচিত ও জনপ্রত্যাশা পূরণে অতীব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।” এছাড়া জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত তহবিল বা এল. আর. ফান্ড সংগ্রহ, পরিচালনা ও ব্যবহার বিষয়ে গত ১০ আগস্ট ২০১৬ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক জারিকৃত পরিপত্র (স্মারক নং- ০৪.০০.০০০০.৫২১.০২.০৩৪.১৫.৪৮২) কে ইতিবাচক পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করে ড. জামান আরো বলেন, ‘‘নাগরিক প্রত্যাশা পূরণে জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে এল. আর. ফান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনায় জারিকৃত পরিপত্র স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সরকারের ঘোষিত নীতি-প্রাধান্য বাস্তবায়নের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। সম্মেলনে এ পরিপত্র প্রতিপালনের অগ্রগতি পর্যালোচনা ও চ্যালেঞ্জ বিশ্লেষণ এবং তার আলোকে করণীয় চিহ্নিতকরণ নাগরিক সেবা নিশ্চিতে সরকারের অঙ্গিকার পূরণে সহায়ক হবে।”