২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

 

নগরের খুলশী থানাধীন আমবাগান ফ্লোরাপাস রোড এলাকায় বাড়ির রিজার্ভ ট্যাংকে পাওয়া যাওয়া মা’কে শ্বাসরোধে হত্যা ও মেয়েকে ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করে হত্যা করা হয়েছে।

এমনটা নিশ্চিত হয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টতা পুলিশের কর্মকর্তারা।

মরদেহগুলো রিজার্ভ ট্যাংক থেকে উদ্ধারের পর মেয়ে মেহেরুন নেসার মাথায় আঘাতের চিহ্ন পেয়েছে পুলিশ। মা মনোয়ারা বেগমের শরীরের কোনো আঘাতের চিহ্ন না পেলেও তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে নিশ্চিত হয়েছে পু্লিশ।

(১৫ জু্লাই) দুপুর ১২টার দিকে স্থানীয়দের খবরে খুলশী থানার আমবাগান ফ্লোরাপাস রোডে মেহের মঞ্জিলের রিজার্ভ ট্যাংকে মা ও মেয়ের মরদেহ খুঁজে পায় পুলিশ।

নিহত দুইজন হলেন-চাঁদপুর জেলার মতলব পুরানবাজার এলাকার ফজলুর রহমানের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৯৭) ও তার মেয়ে অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকতা শাহ মেহেরুন নেসা বেগম (৬৭)।

মেহেরুন নেসা রুপালী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার ছিলেন। কয়েকবছর আগে তিনি অবসরে যান। তিনি অবিবাহিত ছিলেন।

রোববার বিকেল ৪টার দিকে পুলিশ মরদেহগুলো রিজার্ভ ট্যাংক থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহতের বাড়ি থেকে জিনিসপত্র খোঁয়া গেছে কি না নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।