৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কোতোয়ালী থানার দুই কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তারা হলেন- সিআরবি পুলিশ ফাঁড়ির এসআই গোলাম ফারুক ভূঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদ। নগরীর স্টেশন রোডে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের নিয়ন্ত্রিত মোটেল সৈকতে চাঁদা দাবিসহ বিভিন্ন অভিযোগে তাদের প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে সিএমপি‘র একটি সূত্র জানিয়েছে। তবে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসীন প্রশাসনিক কারণে দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে  জানিয়েছেন।

নগরীর স্টেশন রোডে মোটেল সৈকতে পর্যটন কর্পোরেশনের নিয়মকানুন মেনে এবং সরকারি বিধি বিধান অনুসরণ করে দু’টি স্পা পার্লার চলে আসছে। গত ৪ জুলাই কোতোয়ালী পুলিশ পার্লার দু’টিতে অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ১৪ তরুণী ও ৮ যুবককে ধরে নিয়ে যায়। অভিযোগ পাওয়া গেছে, অভিযানের সময় এসআই গোলাম ফারুক ভুঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদ পার্লার দু’টির মালিকের কাছে একলাখ টাকা দাবি করেন।

টাকা দাবির অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে কোতোয়ালীর ওসি মো. মহসীন বলেন, এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ করেনি। অসামাজিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ পেয়েই আমরা সেখানে অভিযান চালিয়েছি।

জানা গেছে, এ অভিযান নিয়ে পুলিশের মধ্যে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পুলিশের সঙ্গে আর্থিক লেনদেনের কয়েকটি ভিডিও ক্লিপ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হাতে পৌঁছেছে বলে জানা গেছে। বিষয়টি অনুসন্ধানের পর সত্যতা পাওয়ায় এসআই গোলাম ফারুক ভুঁইয়া ও এএসআই ফয়সাল মুরাদকে শাস্তিমূলক প্রত্যাহার করা হয় বলে সূত্রটি জানায়।