৩রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ || ১৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

জাতিসংঘ বলেছে, মিয়ানমারের রাখাইনে গণহত্যা চালানো হয়েছে এবং এর দায়ে যুদ্ধাপরাধ আইনে দেশটির সেনা কর্মকর্তাদের বিচার করতে হবে। সোমবার (২৭ আগস্ট)প্রকাশিত রাখাইনের সহিংসতা নিয়ে জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়। বিবিসি।

রাখাইন গণহত্যা বিষয়ক মামলাটি আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত বা আইসিসিতে পাঠানোরও সুপারিশ করা হয়েছে জাতিসংঘের প্রতিবেদনে। অপরাধকে ‘গণহত্যা’, ‘যুদ্ধাপরাধ’ ও ‘মানবতাবিরোধী অপরাধ’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়।

এর আগে এ ঘটনাকে ‘জাতিগত নিধন’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছিল জাতিসংঘ। এবার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দিল বিশ্বের সর্বোচ্চ সংস্থা।

জাতিসংঘের ভাষায়, ‘মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কৌশল বাস্তব নিরাপত্তা হুমকির মোকাবেলার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।এটি করা হয়েছে পরিকল্পিতভাবে।’

৬ জন সেনা কর্মকর্তার নামও উল্লেখ করা হয় রিপোর্টে। গণহত্যা ঠেকাতে ব্যর্থ হওয়ায় তীব্র সমালোচনা করা হয় মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর ও শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অং সান সুচির।